Take a fresh look at your lifestyle.

“হাইটেক পার্ক ব‌রিশালের তরুনদের জন‌্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনার উপহার”-প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ পলক।

নিজস্ব প্রতিবেদক:

১৫
বরিশালের নথুল্লাবাদে হাইটেক পার্ক স্থাপনের জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ভারতের দেয়া সহজ শর্তে অর্থায়নে দেশের ১২ জেলায় ১২টি হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের অংশ হিসেবে বরিশালে এর কাজ শুরু হলো। 
বৃহস্প‌তিবার দুপুরে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক  এর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনের ফলক উন্মোচন করেন। পরে সেখানে তিনটি গাছের চারা রোপন করেন। এসময় সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।
পরে সাংবাদিকদের কাছে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, এই হাইটেক পার্ক ব‌রিশালের তরুনদের জন‌্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনার উপহার। আমরা এত‌দিন ছিলাম শ্রম নির্ভর অর্থনী‌তির বাংলা‌দেশ, কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের কে প্রযু‌ক্তি নির্ভর করতে কাজ করছেন। সাড়ে ৬ একর জ‌মিতে এই হাইটেক পার্ক নির্মান হবে । তবে এর আগেই এখানে শেখ কামাল আই‌টি ট্রেনিং সেন্টার নির্মান করা হয়েছে। যেটা এ বছ‌রের কো‌নো এক‌টি সম‌য়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নি‌জে এ‌টি উ‌দ্বোধন কর‌বেন। ১৫৪ কো‌টি টাকা ব‌্যয়ে সাত তলা বি‌শিষ্ট হাই‌টেক পা‌র্কের ভি‌ত্তিপ্রস্থর স্থাপন ক‌রে‌ছি।
সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনু‌মোদন দি‌য়ে‌ছেন ২০ কো‌টি টাকা ব‌্যয়ে ব‌রিশা‌লে সুষ্ঠ বি‌নোদনের জন‌্য সি‌নে‌প্লেক্স নির্মান করা হ‌বে। এই সব কিছু মি‌লি‌য়ে ২০০ কো‌টি টাকায় সা‌ড়ে ৬ একর জ‌মি‌তে তরুন‌দের কর্মসংস্থান তৈরী‌ ও বি‌নোদ‌নের জন‌্য এই হাই‌টেক পার্ক নি‌র্মিত হ‌চ্ছে।
আমা‌দের অকৃ‌ত্রিম বন্ধু রাষ্ট্র ভার‌তের কাছ থে‌কে আমরা ঋন সহায়তা পে‌য়ে‌ছি। সারা বাংলা‌দে‌শে হাই‌টেক পার্ক নির্মা‌নের জন‌্য ১৯২ ডলার বা প্রায় ১৭শ কো‌টি টাকা ব‌্যয় কর‌ছি। এর ম‌ধ্যে খুব সহজ শ‌র্তে ভারত আমা‌দের ১৩শ কো‌টি টাকা ঋন দি‌য়ে‌ছে, আর বাংলা‌দেশ সরকার বা‌কি টাকা ব‌্যয় কর‌ছে।
প্রতিমন্ত্রী ব‌লেন, আগামী দুই বছ‌রের ম‌ধ্যে এই হাই‌টেক পার্ক নির্মান শেষ হ‌লে ১হাজার তরুন তরুনী‌কে সরাসরি প্রশিক্ষণ দে‌বো। প্রতিবছর তিন হাজার তরুন তরুনীর কর্মসংস্থান সৃ‌ষ্টি কর‌তে পার‌বো প্রত‌্যক্ষভা‌বে। এখা‌নের তরুন তরুনী‌দের ঢাকামুখী হ‌তে হ‌বে না, বি‌দেশমুখী হ‌তে হ‌বে না। তারা ব‌রিশা‌লে ব‌সে ই‌উ‌রোপ আ‌মে‌রিকার কাজ কর‌বে। ব‌রিশাল‌কে সি‌লিকন নগরী হি‌সে‌বে গ‌ড়ে তুল‌তে এই হাই‌টেকপার্ক কাজ কর‌বে।
দক্ষিনাঞ্চলের তরুণেরা গতানুগতিক ব্যবসা-বাণিজ্যর বদলে অনলাইনে কাজ করে উপার্জন করতে পারবেন। এটা দেশের আর্থসামাজিক অবস্থার ব্যাপক পরিবর্তন আনবে।
অনুষ্ঠানে হাই‌টেক পার্ক নির্মান প্রক‌ল্পের প‌রিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক, বিএম‌পির ভা‌রপ্রাপ্ত ক‌মিশনার প্রলয় চি‌সিম, বাংলা‌দেশ হাই‌টেকপার্ক কতৃপ‌ক্ষের ব‌্যবস্থাপনা প‌রিচ‌ালক বিকর্ন কুমার ঘোষ, দি ব‌রিশাল চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডা‌স্ট্রির সভাপ‌তি সাইদুর রহমান রিন্টু  উপ‌স্থিত ছি‌লেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.